Best Domain Hosting & IT Training Company in Dhaka.
Web Design এবং Web Development কি?

Web Design এবং Web Development কি?

Web Design মানে হচ্ছে একটা ওয়েবসাইট দেখতে কেমন হবে বা এর সাধারন রূপ কেমন হবে তা নির্ধারণ করা। ওয়েব ডিজাইনার হিসেবে আপনার কাজ হবে একটা পূর্ণাঙ্গ ওয়েব সাইটের টেম্পলেট বানানো। যেমন ধরুন এটার লেয়াউট কেমন হবে। হেডারে, মেনু কোথায় থাকবে, সাইডবার হবে কিনা, ইমেজগুলো কিভাবে প্রদর্শন করবে ইত্যাদি। ভিন্ন ভাবে বলতে গেলে ওয়েবসাইটের তথ্য কি হবে এবং কোথায় জমা থাকবে এগুলো চিন্তা না করে, তথ্যগুলো কিভাবে দেখানো হবে সেটা নির্ধারণ করাই হচ্ছে ওয়েবডিজাইনার এর কাজ। আর এই ডিজাইন নির্ধারণ করতে ব্যাবহার করতে হবে কিছু টুলস যেমন PHOTOSHOP, GIMP ইত্যাদি এবং কিছু Markup এবং Scripting Language যেমন HTML, CSS এবং JavaScript ইত্যাদি। ওয়েব ডিজাইনারদের কে আমরা Front-end ডেভেলপার ও বলতে পারি।

আর ওয়েব ডেভেলপমেন্ট হচ্ছে একটা ওয়েব সাইটের প্রাণ সঞ্চার করা।

একজন ওয়েব ডিজাইনার যে ডিজাইন তৈরি করেন তার প্রতিটা উপকরণকে ফাংশনাল এবং ডাইনামিক করার জন্য পরিচালিত কর্মকান্ডই হচ্ছে Web Development।

একটা ওয়েব সাইট কে তিনটা ভাগে বিভক্ত করা যায় যেমন ডিজাইন বা টেমপ্লেট, কনটেন্টম্যানেজমেন্ট সিস্টেম এবং ডাটাবেস।

একজন ওয়েব ডেভেলপার এই তিনটি বিষয়ের মধ্যে সমন্বয় ঘটিয়ে পুরো সিস্টেমটি কে সক্রিয় এবং ডাইনামিক করে থাকেন।

একজন ওয়েবডেভেলপারের কাজ হচ্ছে ডাটা প্রসেসিং, ডাটাবেস নিয়ন্ত্রণ, সিকিউরিটি নির্মান, ইউজার এবং এডমিনের ক্ষমতা নিয়ন্ত্রণকরা, এপ্লিকেশনের সকল ফিচারকে ফাংশনাল এবং ডাইনামিক করা এবং সমগ্র সিস্টেমের কার্যকারীতা এবং ব্যবহার যোগ্যতা নিয়ন্ত্রণ করা ।

আপনাকে একজন ভালো ওয়েব ডেভেলপার হতে হলে PHP, MySQL এর পাশাপাশি HTML, CSS, JAVASCRIPT, JQUERY, Bootstrap এর সম্পর্কে বিশদ জ্ঞান রাখতে হবে।

কোনটা শিখবেনডিজাইন ? নাকি ডেভেলপমেন্ট?

এক কথায় বলব আপনি যদি ক্রিয়েটিভ হন, আপনার চয়েস গুলো যদি হাজার জনের চেয়ে সুন্দর হয় তাহলে আপনি ওয়েব ডিজাইনিং এ ভালো করতে পারবেন।  অন্যথায় ওই দিকে না যাওয়া ই ভালো। কেননা মার্কেটে একশ জন ডেভেলপার এর বিপরীতে একজন ডিজাইনার লাগে। তারমানে বুজতেই পারছেন ডিজাইনিং সেক্টর এ প্রতিযোগিতা অনেক বেশি। অন্যদিকে  ওয়েব ডেভেলপার হওয়ার জন্য অত বেশি ক্রিয়েটিভ হওয়া লাগেনা।

একজন ওয়েব ডেভেলপারের কী ধরনের যোগ্যতা থাকতে হয়?

  1. ওয়েব ডেভেলপার হিসেবে কাজ করতে চাইলে ব্যক্তিগত দক্ষতা বেশি জরুরী। অনেক ক্ষেত্রে শিক্ষাগত যোগ্যতা না থাকলেও ব্যক্তিগত দক্ষতার উপর নির্ভর করে নিয়োগ দেওয়া হয়ে থাকে। তবে ওয়েব ডেভেলপার হিসেবে কাজ করতে চাইলে যোগ্যতার বিষয়টি প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষ হলেও সাধারণত কম্পিউটার প্রকৌশল বিষয়ে ব্যাচেলর ডিগ্রি আছে এমন কাউকেই নিয়োগ দেওয়া হয়। কিছু ক্ষেত্রে কম্পিউটার প্রকৌশল বিষয়ে ডিপ্লোমা ডিগ্রি থাকলেও আপনাকে নিয়োগ দেওয়া হতে পারে। অধিকাংশ ক্ষেত্রে তথ্য প্রযুক্তি বা আইটি, কম্পিউটার প্রকৌশল, টেলিকমিউনিকেশন প্রকৌশল বিষয়ে ডিগ্রির কথা উল্লেখ করা থাকে। এর পাশাপাশি অধিকাংশ ক্ষেত্রেই দেখা যায় পুরোনো অভিজ্ঞতা এবং সম্যক ধারণা ও জ্ঞানের উপর ভিত্তি করে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তিতে উল্লিখিত ডিগ্রির বিষয়টি নিয়োগের জন্য শিথিল করা হয়। আবার অনেক ক্ষেত্রে দেখা যায় নির্দিষ্ট কোন বিষয় নয় বরং শুধুমাত্র ব্যাচেলর বা মাস্টার্স ডিগ্রি থাকলেই আপনার কোডিং ও প্রোগ্রামিং-এর ধারণার উপর ভিত্তি করে আপনাকে নিয়োগ দেওয়া হবে। এক্ষেত্রে বিষয়টি একেবারেই প্রতিষ্ঠানসাপেক্ষ এবং কম্পিউটার প্রকৌশল বিষয়ে ডিগ্রি না থাকলেও নিয়োগ পেতে পারেন। অধিকাংশ ক্ষেত্রে ডিগ্রির প্রয়োজনীয়তা না থাকলেও কিছু ক্ষেত্রে কম্পিউটার প্রকৌশল বিষয়ে মাস্টার্স ডিগ্রির কথা উল্লেখ করা থাকতে পারে।;
  2. ওয়েব ডেভেলপার হিসেবে কাজ করার ক্ষেত্রে অভিজ্ঞতা গুরুত্বপূর্ণ বিষয়। নিয়োগ পাওয়ার জন্য ন্যূনতম ১ বছরের অভিজ্ঞতা অধিকাংশ ক্ষেত্রেই বাধ্যতামূলকভাবে উল্লেখ করা থাকে। কিছু ক্ষেত্রে ৪ থেকে ৭ বছরের অভিজ্ঞতা প্রয়োজনীয় হতে পারে। সাধারণত ১ থেকে ৩ বছরের অভিজ্ঞতা থাকলেই এক্ষেত্রে ওয়েব ডেভেলপার হিসেবে নিয়োগ পাওয়া যায়;
  3. ওয়েব ডেভেলপার হিসেবে কাজ করতে চাইলে নারী বা পুরুষ প্রার্থী নিয়োগের কথা আলাদাভাবে সাধারণত উল্লেখ করা থাকে এবং এ ধরনের কোন বাধ্যবাধকতাও এক্ষেত্রে নেই। নারী এবং পুরুষ উভয়ের জন্যই কাজটি সমান ভার ও অর্থ বহন করে বিধায় নারী-পুরুষ উভয়েই ওয়েব ডেভেলপার হিসেবে কোন প্রাধান্য ছাড়াই কাজ করতে পারেন;

ধরুন আমি তা ভালোভাবেই শিখলাম। পরে কোথায় এবং কিভাবে কাজ করব?

অনলাইন মার্কেটপ্লেস গুলো যেমনঃ upwork.com, freelancer.com, fiverr.com  ওয়েব পেইজ ডিজাইনার এবং ওয়েব ডেভেলপারদের যথেষ্ট চাহিধা রয়েছে। এইসব মার্কেট গুলোতে আপনি সর্বনিম্ন ২ ডলার থেকে ১০০ ডলার পর্যন্ত প্রতি ঘন্টা আয় করতে পারেন। তা ছাড়া themeforest.net, codecanyon.net এর মতো মার্কেট প্লেসে আপনি আপনার তৈরী ওয়েব এপ্লিকেশন গুলো বিক্রি করে প্রতি মাসে লক্ষ টাকা আয়  করতে পারেন। এবং বাংলাদেশে হাজার হাজার সফটওয়্যার এবং ওয়েব ডেভেলপমেন্ট কোম্পানি গুলোতে আপনি চাকরিও করতে পারেন। এই সেক্টরে বড় সুবিধা হচ্ছে আপনি কম্পিউটার সাইন্স এ পড়া লেখা না করেও সফটওয়্যার কোম্পানি গুলোতে ভালো স্যালারি তে জব করতে পারবেন।

একজন Web Developer এর মাসিক আয় কেমন?

একজন Web Developer এর যে কোনো কোম্পানিতে জুনিয়র Web Developer অথবা জুনিয়র Software Engineer থেকে শুরু করে Software আর্কিটেক্ট হিসেবে প্রতিষ্ঠা পেতে পারেন। এ পেশায় প্রাথমিক অবস্থায় খুবই সামান্য বেতন ৫ থেকে ১৫ হাজার টাকা বেতন পাওয়া যায়। এন্ট্রি লেভেলের জব গুলোতে ভালো করলে ২/৫ বছর পর সফটওয়্যার ইঞ্জিনিয়ার এবং সফটওয়্যার আর্কিটেক্ট হিসেবে বেতন ৫০ হাজার থেকে এক লাখ টাকা হতে পারে। পরবর্তীতে বেড়ে তা ২ থেকে ৩ লাখ টাকাও হতে পারে । দক্ষতা ও যোগ্যতা থাকলে দেশের বাইরে রিমোট জবের সুযোগ পাওয়া সম্ভব। দেশের বাইরে রিমোট জবের মাধ্যমে অনেকে ৭-১০ লাখ টাকাও উপার্জন করছেন।

আপনাদের প্রতিষ্ঠানে কি ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এর উপর কোনো ট্রেনিং করানো হয় ?

জি আমাদের প্রতিষ্ঠানে ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এর উপর দুটি কোর্স অফার করে থাকে, ১ টি হচ্ছে প্রফেশনাল কোর্স যেটা একদম বিগিনারদের জন্য , আর অন্যটি হচ্ছে PHP Advance বা zcpe কোর্স। এক্ষেত্রে আমরা গর্বিতভাবে নিজেদেরকে সব চেয়ে যোগ্য প্রতিষ্ঠান মনে করি। কেননা ইতি পূর্বে আমাদের প্রতিষ্ঠান থেকে যারা ওয়েব ডেভেলপমেন্ট এর উপর ট্রেনিং করেছেন , তাদের অধিকাংশই দেশ বিদেশে বিভিন্ন কোম্পানিতে সুপ্রতিষ্ঠিত। আমরা ততক্ষন আপনাকে প্রশিক্ষণ দিয়ে যাবো , যতক্ষণ না আপনি চাকরির জন্য শতভাগ প্রস্তুত হবেন। আর এর জন্য আমাদের আছে সর্বাধুনিক ল্যাব সুবিধা , দেশের সব চেয়ে যোগ্য এবং ৮-১০ বছরের কাজের অভিজ্ঞতা সম্পন্ন প্রশিক্ষকরা। আর আমাদের প্রত্যেকটি কোর্স এ থাকে সর্বনিন্ম ২ টি real life project.

আপনারা কি কোনো Framwork শেখান? শেখালে সেটি কি?

হ্যাঁ আমরা ZCPE Course এর সাথে CodeIgniter ফ্রেমওয়ার্ক ফ্রি তে শেখাই

আপনাদের প্রতিষ্ঠানের ঠিকানা?

হাউস ৩৬ (দৃতীয় তলা), রোড ২, ব্লক – L , বনানী, ঢাকা – ১২১৩।

আপনার সাথে সরাসরি কোর্সের ব্যাপারে কথা বলা যাবে?

হাঁ যাবে, প্রতিদিন সকাল ১০:০০ টা থেকে বিকাল ৭:০০ টা পর্যন্ত আমি অফিস এ থাকি।  তা ছাড়া আমার সাথে সরাসরি ফোন এ যোগাযোগ করতে পারেন।  মোবাইল: ০১৭৫৯ ৯৫১৯ ৯৭
আর ফেসবুকেও আমাকে যেকোনো প্রশ্ন করতে পারেন, আমি সর্বোচ্চ চেষ্টা করবো আপনাদের প্রশ্নের উত্তর দিতে। আমার প্রোফাইল লিংক : https://www.facebook.com/joycse

Leave a Reply

Close Menu